স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হকের মৃত্যুতে নওগাঁ-২ আসনের নির্বাচন স্থগিত

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হকের মৃত্যুতে নওগাঁ-২ আসনের নির্বাচন স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, নির্বাচনী আইন অনুযায়ী রিটার্নিং কর্মকর্তা নির্বাচন স্থগিত করবেন। পরে ওই আসনে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হবে। বাকি বৈধ প্রার্থীরা প্রার্থী হতে থাকবেন।

7Searchppc

তফসিল অনুযায়ী, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ৭ জানুয়ারি। নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামইরহাট) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হক আট দিন আগে মারা গেছেন।

জনপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, 1972 বলে যে নির্বাচনের আগে বৈধ প্রার্থীর মৃত্যু বাতিল হবে।

তাই নিয়ম অনুযায়ী এ আসনের নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। ফলে এ আসনে নতুন তফসিল ঘোষণা করা হবে।

নওগাঁ-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হক (৭৫) শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) ভোর সাড়ে ৪টায় রাজধানীর একটি হাসপাতালে মারা যান।

৩ ডিসেম্বর এক বিজ্ঞপ্তিতে নির্বাচন কমিশন বলেছে, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চূড়ান্ত প্রার্থীদের কেউ মারা গেলে ওই আসনের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হবে। নির্দেশে বলা হয়েছে, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, 1972 এর ধারা 91A এবং 91E ধারা অনুযায়ী বৈধভাবে মনোনীত প্রার্থীর মৃত্যু হলে বা প্রার্থিতা বাতিল হলে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার নির্বাচন প্রক্রিয়া বাতিল করতে হবে। অনুচ্ছেদ 17 এর ধারা (1) অনুসারে পাবলিক নোটিফিকেশন। এর পরে গৃহীত ব্যবস্থাগুলি অবিলম্বে নির্বাচন কমিশনকে জানাতে হবে।

কমিশন ওই আসনের নতুন তফসিল ঘোষণা করবে বলেও জানানো হয়েছে। কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠানে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে যাদের মনোনয়নপত্র আগে বৈধ ছিল তাদের নতুন করে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে না। এমনকি সিকিউরিটি ডিপোজিটেরও প্রয়োজন নেই।

এবারের নির্বাচনে আমিনুল হকের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। হাইকোর্টে রিট আবেদনের মাধ্যমে তিনি প্রার্থিতা ফিরে পান।

উল্লেখ্য, নওগাঁ-২ আসনে সরকারি দলের এমপি শহীদুজ্জামান সরকার, জাতীয় পার্টির প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেন, আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আখতারুল আলম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.