মনোনয়ন প্রত্যাহারের হুমকি দিয়েছে বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থীরা

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- বর্তমান সরকারের অধীনে জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ কংগ্রেস। তবে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ না পেলে যেকোনো সময় মনোনয়ন প্রত্যাহারের হুমকি দিয়েছেন দলটির ১২১ জন প্রার্থী।

শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এ হুমকি দেন।

7Searchppc

তিনি বলেন, সরকার ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে বানরের রুটির মতো সংসদের আসন ভাগাভাগি করায় নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না বলে আমরা আশঙ্কা করছি। আমরা এই বিভাগে নেই। আমরা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুত পরিবেশ না পেলে বাংলাদেশ কংগ্রেসের শতাধিক প্রার্থীর নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানো ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না।

তিনি বলেন, “কারো ক্ষমতার সিঁড়ি বেয়ে আমরা নির্বাচনে আসিনি বা কাউকে বৈধতা দেওয়ার জন্য লিজ নিইনি। আমরা শেষ পর্যন্ত নির্বাচিত হলে আমাদের মাধ্যমেই তারা বৈধতা পাবে। তাই নির্বাচনের পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় আমাদের প্রার্থীরা তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করবে।

ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়ত আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের মহোৎসব উপভোগ করছেন অভিযোগ করে অ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন বলেন, তাদের কর্মকাণ্ড মূলত নির্বাচনের নামে প্রহসন। সরকার নিয়ন্ত্রিত স্থানীয় প্রশাসন প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে তাদের এ ধরনের অবৈধ কর্মকান্ডে সহায়তা করছে। প্রশাসনের এমন একক নীতি ও আচরণের ফলে কার্যত নির্বাচন কমিশনের সব নির্দেশই বাগাড়ম্বর বলে মনে হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. ইয়ারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল মোর্শেদ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবলুসহ অর্ধশতাধিক সংসদ সদস্য প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ কংগ্রেস ডাব প্রতীকে নির্বাচিত হতে ১৪০ জনকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থী হিসেবে 121 জন প্রার্থী চূড়ান্তভাবে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.