Ultimate magazine theme for WordPress.

পেঁয়াজের দাম বাড়ায় খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- বাংলাদেশের মতো ভারতেও পেঁয়াজের দাম বাড়ছে হু হু করে । এবার আদালত পর্যন্ত গড়াল পেঁয়াজের ঝাঁজ । ‘জনগণের সঙ্গে প্রতারণা’র অভিযোগে মামলা ঠুঁকে দিয়েছেন এক ব্যক্তি। মামলায় বিবাদী করা হয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রীকে। আগে পেঁয়াজের ঝাঁজে চোখে পানি আসলেও এখন যেন পেঁয়াজের দাম শুনেই চোখে পানি আসার উপক্রম। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ খবর নিশ্চিত করেছে।

বাংলাদেশের মতো ভারতের জনগণও পেঁয়াজ কিনতে নাজেহাল। দেশটির কোথাও কোথাও প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ২০০-এর কাছাকাছি। এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রামবিলাশ পাসোয়ানের বিরুদ্ধে বিহারের এক আদালতে ফৌজদারি মামলা দায়ের হয়েছে। খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ‘প্রতারণা ও বিভ্রান্ত করার’ অভিযোগ আনা হয়েছে। মুজ্জাফফরপুর মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের কোর্টে মামলাটি করেছেন এম রাজু নায়ার নামে জনৈক সমাজকর্মী।

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, এশিয়ার বৃহত্তম পেঁয়াজের বাজার ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের লাসালগাঁও শহর। সেখানে কুইন্টাল প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০ হাজার টাকায়। অর্থাৎ কেজি ১০০ টাকা। মুম্বাইয়ের ভাশি মার্কেটে কেজি প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১৩০ টাকায়। খুচরা বাজারে এসব পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা। মুম্বাই থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে লাসালগাঁও থেকে গোটা দেশে পেঁয়াজ রফতানি করা হয়। কলকাতায় প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৩০ টাকা।

মামলাকারীর অভিযোগ, কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী হিসেবে পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ করা রামবিলাশ পাসোয়ানের দায়িত্ব। কিন্তু সেই দায়িত্ব পালনে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছেন মোদি সরকারের এই মন্ত্রী। এইভাবে তিনি সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। আগামী ১২ ডিসেম্বর মামলার শুনানির দিন ধার্য করেছেন বিচারক মৌর্য কান্ত তিওয়ারি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.