সাইবার হামলায় রাষ্ট্রের বড় ধরনের ক্ষতি করা সম্ভব

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/-সাইবার হামলার মাধ্যমে একটি রাষ্ট্রের বড় ধরনের ক্ষতি করা সম্ভব উল্লেখ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, পুরো দেশ যেখানে ডিজিটাল হচ্ছে সেখানে ঝুঁকিও থাকবে। তবে সেই ঝুঁকি মোকাবিলায় রাষ্ট্র, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি পর্যায়ে কার্যকর ভূমিকা পালন করা আবশ্যক।

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা’ বিষয়ক অনলাইন কোর্স চালু করা হয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ডিজিটাল নিরাপত্তা এজেন্সি (ডিএসএ) এবং এটুআই-এর যৌথ উদ্যোগে।

রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আইসিটি টাওয়ারের বিসিসি সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক কোর্সের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচনা সঞ্চালনা করেন এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সাইবার হামলা থেকে রক্ষা পেতে সচেতনতা ও সক্ষমতা তৈরির কোন বিকল্প নেই। এ ধরনের সক্ষমতা র্অজনে সরকারি-বেসরকারি খাত, ইন্ডাস্ট্রি এবং একাডেমিয়া একসঙ্গে কাজ করতে হবে। পাশাপাশি ভৌত অবকাঠামো র্নিমাণ করতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশক্রমে আইসিটির নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করতে এবং সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের মধ্যে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা’ বিষয়ক সচেতনতা তৈরি করতে একটি অনলাইন কোর্স তৈরি করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ বলেন, সরকারি প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে অন্তত একটি অনলাইন কোর্স দেয়ার কথা। এ লক্ষ্যে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানে প্রস্তুত।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.