‘ব্যর্থতার মাশুল আমাদেরকে ৪৮ বছর যাবত দিতে হচ্ছে’

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/-এ ব্যর্থতার মাশুল আমাদেরকে ৪৮ বছর যাবত দিতে হচ্ছে। আমরা এমন ব্যর্থতার পরিচয় আর দিতে চাই না। আমরা আবার ধুলাবালি মাটি কাদা মেখে এ দেশটাকে গড়তে চাই।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ৩০ লাখ মানুষ স্বাধীনতার জন্য জীবন দিয়েছেন। তারা স্বাধীনতা দেখতে পারেননি। আমরা বর্তমানে স্বাধীন বাংলার মানুষ হয়েও জাতির পিতাকে ধরে রাখতে পারিনি বলে দেশ অন্ধকারে গিয়েছিল। সেই অন্ধকার থেকে আমাদের তুলে এনেছেন জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ধরে রাখতে না পারা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা বলে মন্তব্য করেন তিনি। রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে অভ্যন্তরীণ নৌরুটে পণ্যবাহী জাহাজ ভাড়ার প্রথম অ্যাপ ‘জাহাজী’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের এ সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০৪৮ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশ হবে। এ উন্নত দেশ বাস্তবায়নের জন্য ডেল্টা প্ল্যান করা হয়েছে। ডেল্টা প্ল্যান ধরে রাখার জন্য আমাদের কাজ করে যেতে হবে। কোনো বিশৃঙ্খলা করা যাবে না। বিশৃঙ্খলা করলে কী হয় সেটা যারা করেছে তারা ইতোমধ্যে অনুধাবন করতে পেরেছে।

তিনি আরও বলেন, ২০১৫ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে খুব ভালো অবস্থানে ছিল না। ২০০৯ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত আমাদের কঠিন একটা সময় গেছে। এর মধ্যে ৯৩ দিন মানুষ অবরুদ্ধ ছিল। এরপর যদি ২০১৬ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দেখি -এ সময়গুলো আমাদের জন্য ভালো সময়। ২০১৮ সালে এসে আমরা একটা পার্টিসিপেটরি নির্বাচন দেখলাম। নির্বাচনের পরে এখন সংসদ বহাল আছে।

দেশের প্রথম অভ্যন্তরীণ নৌরুটে পণ্যবাহী জাহাজ ভাড়ার অ্যাপ ‘জাহাজী’র প্রশংসা করেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘জাহাজী’র মতো উদ্যোক্তা যদি আমাদের সেক্টরে কাজ করতে আসে, তাহলে সবসময় আমরা তাদেরকে স্বাগত জানাব। জাহাজীর মতো শত শত উদ্যোগ গ্রহণ করে বাংলাদেশকে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটি সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কাজল আব্দুল্লাহ, নৌপরিবহন অধিদফতরের মহাপরিচালক সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, বাংলাদেশ কার্গো ভেসেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি মাহবুব উদ্দিন আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, জাহাজী মূলত একটি মোবাইলভিত্তিক অ্যাপস। যার মাধ্যমে জাহাজের মালিক ও জাহাজ ভাড়া সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের একটি মেলবন্ধন সৃষ্টি হবে। এ অ্যাপের মাধ্যমে দেশ-বিদেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচলকারী জাহাজ ভাড়া, জাহাজের গন্তব্য এবং তাদের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে জানা যাবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.