অপরাধ দমনে জনগণকে সম্পৃক্ত করা অপরিহার্য

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/-পুলিশের একার পক্ষে অপরাধ দমন করা কঠিন। অপরাধ দমনে জনগণকে সম্পৃক্ত করা অপরিহার্য। তিনি কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম জোরদার করার মাধ্যমে জনগণকে সাথে নিয়ে অপরাধ দমনে কাজ করার জন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।রোববার বিকেলে পুলিশ সদর দফতরের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা, চাঁদপুর, নওগাঁ, গাইবান্ধা ও চুয়াডাঙ্গা জেলায় নবনিযুক্ত পুলিশ সুপারদের ব্রিফিংকালে এ নির্দেশনা প্রদান করেন আইজিপি। পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) মো. সোহেল রানা এক বার্তায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দেশের কোথাও যেন কিশোর ‘গ্যাং কালচার’ গড়ে উঠতে না পারে সে ব্যাপারে তৎপর থাকার জন্য জেলার পুলিশ সুপারদের নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

আইজিপি বলেন, নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, শিশু নির্যাতনের মতো অপরাধ অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে হবে। জনগণ বিপদে পড়ে অসহায় অবস্থায় পুলিশের কাছে সাহায্যের জন্য আসে। থানায় আসা মানুষের সাথে ভাল ব্যবহার করতে হবে। তাদের সমস্যা ও অভিযোগের কথা গুরুত্ব দিয়ে শুনে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে। থানা হবে জনগণের আস্থার জায়গা।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত আইজিপি ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্তি আইজিপি শাহাব উদ্দীন কোরেশী, অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, এসবি প্রধান মীর শহীদুল ইসলাম, সিআইডি প্রধান মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম প্রমুখ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ প্রধান আশা প্রকাশ করে বলেন, বর্তমান সরকারের ‘রূপকল্প- ২০৪১’ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে। উন্নত দেশের উপযোগী করে পুলিশ বাহিনীকে গড়ে তুলতে আমরা বদ্ধপরিকর। সর্বস্তরে সততা ও শুদ্ধাচার চর্চার মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার জন্য কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান আইজিপি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.