At last news on first everyday everytime

বিদ্যুৎ বিল ১২৮ কোটি ৪৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪৪৪ টাকা!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- খুব বেশি হলে যেখানে প্রতি মাসে ৮০০ টাকা বিদ্যুৎ বিল আসার কথা। অথচ ওই পরিবারেই বিদ্যুৎ বিল এসেছে ১২৮ কোটি ৪৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪৪৪ টাকা। বিপুল অঙ্কের বিল মেটাতে না পারায় লাইন কেটে দেওয়া হয়েছে। বাধ্য হয়ে বিদ্যুৎ অফিসের সঙ্গে কথা বলেছেন ওই পরিবারের সদস্যরা।

দিল্লি থেকে মাত্র ৮০ কিলোমিটার দূরের উত্তরপ্রদেশের হাপুরের চামরির বাসিন্দা শামিম। শুধু লাইট আর পাখা ছাড়া কিছুই নেই তার বাড়িতে। প্রতি মাসে খুব বেশি হলে ৭শ কিংবা ৮শ টাকা বিদ্যুত বিল আসে। কিন্তু চলতি মাসে তাদের বিল এসেছে ১২৮ কোটি ৪৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪৪৪ টাকা।

শুধুমাত্র লাইট এবং পাখা চালিয়ে কীভাবে এত টাকা বিল আসতে পারে? মোটা অঙ্কের টাকা দেওয়ার ক্ষমতা নেই তাদের। তাই সংশ্লিষ্ট দফতর তাদের বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিয়েছে। এ বিষয়ে স্থানীয় বিদ্যুৎ দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। ইঞ্জিনিয়ার রাম শরণ বলেন, যান্ত্রিক ত্রুটির জন্যই বিল এত বেশি এসেছে। পুরনো একটি বিল নিয়ে এলেই টাকার অঙ্ক ঠিক করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার ভুল অঙ্কের বিল পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে বিদ্যুৎ অফিসের বিরুদ্ধে। গত জানুয়ারি মাসে একই পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিলেন কনৌজের বাসিন্দা আবদুল বসিত। ২৩ কোটি টাকার বিল পাঠানো হয় তাকে। বিপুল অঙ্কের বিদ্যুৎ বিল হাতে পেয়ে আত্মহত্যার ঘটনাও নতুন কিছুই নয়। এর আগে মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গবাদে সবজি বিক্রেতার কাছে ৮ লাখ ৬৪ হাজার টাকার বিদ্যুৎ বিল এসেছিল। এরপরেই আত্মহত্যা করেছিলেন ওই সবজি বিক্রেতা।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.