Ultimate magazine theme for WordPress.

চিকিৎসক ও পরিবারের সাথে কথা বলতে পারছেন ওবায়দুল কাদের

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- চিকিৎসক এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতে পারছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।খুলে দেয়া হয়েছে তার শ্বাসনালীর নল।

সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসায় গঠিত পাঁচ সদস্যের চিকিৎসক দলের সিনিয়র সদস্য ডা. সিবাস্টিন কুমার সামিকে উদ্ধৃত করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক এবং নিওরোলজিস্ট প্রফেসর ডা. আবু নাসার রিজভী শনিবার (৯ মার্চ) এ তথ্য জানান।

ডা. আবু নাসার রিজভী বলেন, সবচেয়ে ভালো সংবাদ হলো কাদের ভাইয়ের সব এক্সটার্নাল ডিভাইস খুলে নেয়া হয়েছে। তিনি এখন সম্পূর্ণভাবে সব ডিভাইস মুক্ত। আমি তার নিউরোলজিক্যাল পার্ট পরীক্ষা করে দেখেছি, নিউরোলজিক্যালি উনি হান্ড্রেড পার্সেন্ট স্ট্যাবল আছেন। উনি আজকে আমার সঙ্গে কথা বলেছেন। ওনার হার্ট হান্ড্রেড পার্সেন্ট স্ট্যাবল আছে। ইনফেকশন আগের থেকে অনেক কন্ট্রোলে এসেছে। কিডনির অবস্থাও অনেক উন্নতি হয়েছে। এই মুহূর্তে তার মূল সমস্যা শারীরিক দুর্বলতা। এ দুর্বলতা দুই একদিনের মধ্যে ওভারকাম করলে ইনশাআল্লাহ আমরা ওনাকে ক্যাবিনে শিফট করে নিয়ে যাব।

এর আগে ডা. সিবাস্টিন চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়ে সকালে ব্রিফ করেন। ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন কাদেরের স্ত্রী বেগম ইসরাতুন্নেসা কাদের, ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মীর্জা, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান, সড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন ও চিকিৎসা সমন্বয়ক ডা. আবু নাসার রিজভী।

পরে ডা. রিজভী হাসপাতালের লবিতে সমবেতদের চিকিৎসা বিষয়ক অগ্রগতি অবহিত করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপি, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমসহ সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটি নেতারা।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.