Ultimate magazine theme for WordPress.

সিরাজগঞ্জ ও নাটোর ২ এর প্রার্থীর নিরাপত্তায় রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ কামনা

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- রাতে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডেকে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ ২ আসনের প্রার্থী রুমানা মাহমুদ ও নাটোর ২ আসনের প্রার্থী সাবিনা ইয়াসমিন অবরুদ্ধ হয়ে রয়েছেন দাবি করে তাদের নিরাপত্তায় রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
তিনি বলেন, সিরাজগঞ্জে বিএনপির জেলা কার্যালয় ঘিরে রেখেছে ক্ষমতাসীনদের নেতা-কর্মীরা। তারা দফায় দফায় কার্যালয় লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ছেন। ইতোমধ্যেই তাদের ছোড়া গুলিতে বেশ কয়েকজন বিএনপির নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছে। এ সময় সিরাজগঞ্জ ২ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী রুমানা মাহমুদও আহত হন।

সিরাজগঞ্জের মতো নাটোরেও ক্ষমতাসীনরা তাণ্ডব চালাচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন রিজভী। তিনি বলেন, নাটোর-২ আসনের প্রার্থী সাবিনা ইয়াসমিন নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারছেন না। সার্বক্ষণিকভাবে মুখোশধারী কিছু দুর্বৃত্ত মোটরসাইকেল নিয়ে তাকে অনুসরণ করছে।
এ অবস্থায় কৌশলে বৃহস্পতিবার রাতে তিনি বাড়ি গেলেও এখন আর বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। তার বাড়ির সামনে অস্ত্রহাতে সন্ত্রাসীরা অবস্থান নিয়েছেন।

দলের দুই নারী প্রার্থীর নিরাপত্তা চেয়ে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সরকারের সকল সংস্থায় ক্ষমতাসীনদের দলীয় ক্যাডারের মতো কাজ করছে। তাদের ওপর ভরসা নেই। তাই এই দুই নারী প্রার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ কামনা করছি। তিনি রাষ্ট্রের অভিভাবক, আশাকরি তিনি অন্তত এই দুই নারী প্রার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।

ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলার হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে রিজভী বলেন, হামলার অনেক আগে থেকেই সেখানে সরকারি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। তারাই কামাল হোসেনকে অনুসরণের এক পর্যায়ে হামলার ইশারা দেন বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.