Ultimate magazine theme for WordPress.

ঝগড়ার পর প্রেমিকাকে খুন করে প্রেমিক

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- দুইজনের মধ্যে ঝামেলা লেগেই থাকত কারণ তারা টিনএজ। ছেলের বয়স ১৬, মেয়ের ১৭। বেশ কয়েকমাস প্রেম-ভালোবাসার মধ্যেই শুরু শারীরির সম্পর্ক। এক পর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী। কথাটি কিশোরকে জানায়নি কিশোরী। যখন জানে তখন পেরিয়ে যায় গর্ভপাতের সময়সীমা ।
শেষপর্যন্ত চরম পর্যায়ে ঝগড়ার পর প্রেমিকাকে খুন করে ফেলে প্রেমিক। খুন করার পর সেই ছুরি ভাসিয়ে দিয়ে আসে পাশের নদীতে। কিশোর প্রেমিকের কথায়, ‘আমার প্রেমিকাও থাকবে না, সন্তানও না।’
এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা মিশাওয়াকা স্কুলের দুই শিক্ষার্থীর ঘটনা। কিশোরীর নাম ব্রিয়ানা রোসেলাং এবং কিশোর অ্যারন ত্রেজো।
সম্প্রতি একটি ফুটবল ম্যাচ জিতেছিল ওই স্কুলের পড়ুয়ারা। সেই উদ্দেশ্যেই গত রোববার সন্ধ্যায় তাদের একটি পার্টি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই ঘটলো এ হত্যাকাণ্ড।
গত শনিবার রাতে ব্রিয়ানার সৎ মা জানতেন মেয়ে প্রেমিকের বাড়ি যাচ্ছে। কিন্তু সারারাত মেয়ে ফেরেনি দেখে তিনি ধরেই নিয়েছিলেন মেয়ে ওখানে আছে। সকালেও ফিরছে না দেখে তিনি ত্রোজোর বাড়িতে যান। কিন্তু ত্রোজো কিছুতেই কিছু স্বীকার করে না। এরপর পুলিশি জেরার সামনে সে ভেঙে পড়ে এবং জানায় সে খুন করেছে প্রেমিকাকে।
ব্রিয়ানাকে খুন করে তার গলায় স্কার্ফ পেঁচিয়ে এমনভাবে ফেলে আসে যাতে প্রাথমিকভাবে দেখলে মনে হয় সে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনার পর নিজের ফোনটিও নদীতে ফেলে দেয় ত্রেজো। আপাতত তাকে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে কিশোর প্রেমিক অ্যারন ত্রেজোকে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.