Ultimate magazine theme for WordPress.

‘শিক্ষিকার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ একাংশের’

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- অরিত্রী অধিকারীকে হত্যায় প্ররোচনার দায়ে গ্রেফতার হওয়া শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে শনিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে আবার বিক্ষোভ করবে ভিকারুননিসার শিক্ষার্থীদের একাংশ।

শিক্ষার্থীদের একাংশের বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার কথা শুক্রবার ঘোষণা করে একাদশ শ্রেণির ছাত্রী প্রকৃতি প্রযুক্তি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা আজকের (শুক্রবার) মতো বিক্ষোভ স্থগিত করেছি। তবে শিগগিরই মিসকে (শিক্ষিকা হাসনা হেনা) মুক্তি দেওয়া না হলে শনিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে আবার বিক্ষোভে নামব। কাল শুধু মূল ভবনের বাইরে অবস্থান নেওয়া হবে। এরপরও তাকে মুক্তি না দেওয়া হলে রোববার মূল সড়কে অবস্থান নেব আমরা। পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হবে।’

এর আগে শিক্ষার্থীদের অপর অংশের ঘোষিত ছয় দফা দাবির সঙ্গে শিক্ষিকা হাসনা হেনার মুক্তির দাবি সাংঘর্ষিক কি না- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ছয় দফার সবগুলো দাবির সঙ্গে আমরা একমত। তবে ছয় দফাতে শুধু অপরাধীদের বিচারের কথা বলা হয়েছে। কিন্তু আমাদের ম্যাম তো নির্দোষ। তাই তার মুক্তি চাই আমরা।’

শিক্ষার্থীদের দাবি, অরিত্রীর মুত্যুর জন্য দায়ী অধ্যক্ষ ও শাখা প্রধান শিক্ষক। অথচ তাদেরকে বাদ দিয়ে মায়ের মতো শিক্ষিকা হাসনা হেনাকে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হয়েছে। যারা প্রকৃত অপরাধী তাদের গ্রেপ্তার করা হয়নি।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, শিক্ষিকা হাসনা হেনার মুক্তির জন্য তারা আইনি প্রক্রিয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন না। তাই যতক্ষণ না তাকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন তারা। পাশাপাশি তার মুক্তির দাবিতে রোববার শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হবে।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার রাত ১১টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় একটি হোটেল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.