Ultimate magazine theme for WordPress.

বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ প্যারিসে পুলিশের টিয়ারগ্যাস ব্যবহার

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক /- সহিংস বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে টিয়ারগ্যাস ব্যবহার করেছে পুলিশ। শনিবার রাজধানীর কেন্দ্রস্থলে বিক্ষোভকারীরা জমায়েত হয়ে সহিংসতা শুরু করলে এ ঘটনা ঘটে।

বিবিসি জানিয়েছে, পুলিশ অন্তত ২১১ জনকে আটক করেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে কেবল প্যারিসেই আট হাজার পুলিশ ও ১২টি সাঁজোয়া যান মোতায়েন করা হয়েছিল। আর সারা দেশে মোতায়েন করা হয় ৯০ হাজার পুলিশ।

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গত মাস থেকে সাপ্তাহিক ছুটির দিনগুলোতে বিক্ষোভ হয়ে আসছে। বিক্ষোভে ট্যাক্সি চালকদের ব্যবহৃত হলুদ জ্যাকেট পরে প্রতিবাদকারীরা অংশ নেওয়ায় এই আন্দোলনের নাম দেওয়া হয় ‘ইয়োলো ভেস্ট’ বা ‘হলুদ জ্যাকেট’ আন্দোলন। আন্দোলনকারীদের সহিংসতায় এ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছে। এছাড়া দেশজুড়ে সহিংসতা ও লুটতরাজ এবং বেশ কয়েকটি স্থাপনা ও ভাস্কর্যও ভাঙা হয়েছে। গত মঙ্গলবার সরকারের পক্ষ থেকে কর আরোপের সিদ্ধান্ত বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়। তবে এরপরও বিক্ষোভকারীরা আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়। সরকারের দাবি এ পর্যায়ে আন্দোলনটি ভিন্নখাতে নিয়ে যেতে চাচ্ছে ‘চরম সহিংস’ বিক্ষোভকারীরা।

প্যারিসের চ্যাম্প-এলিসিতে প্রায় পাঁচ হাজার বিক্ষোভকারী জমায়েত হয়েছিল। তারা পুলিশের দেওয়া ব্যারিকেড ভেঙ্গে মিছিল করতে চেয়েছিল। এ সময় পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে।

ফরাসি দৈনিক লা মন্ডির এক সাংবাদিক জানিয়েছেন, বিক্ষোভকারীরা সংখ্যায় কম ছিল। পুলিশ তাদের ব্যাগ তল্লাশি করেছে এবং হেলমেট ও চশমার মতো জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করেছে। বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশই পুরুষ, যাদের বয়স ২০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। সহিংসতার হুমকি দেওয়ার পর বিক্ষোভ থেকে সরে গেছেন তুলনামুলকভাবে বয়স্করা।

পুলিশ ৪৮০ জনেরও বেশি বিক্ষোভকারীকে প্যারিসে প্রবেশ করতে দেয়নি । এছাড়া ২১১ জনকে আটক করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দ ফিলিপ জানিয়েছেন, এর আগের সপ্তাহ তুলনায় শনিবার আটককৃত বিক্ষোভকারীর সংখ্যা বেশি।

তিনি বলেন, ‘শনিবারের বাকি সময়টুকু সবচেয়ে ভালোভাবে যেন যায় আমরা তা নিশ্চিত করব।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.