Ultimate magazine theme for WordPress.

ভিকারুননিসার শিক্ষিকা হাসনা হেনা গ্রেফতার

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার মামলায় তার শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বুধবার রাতে উত্তরা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ছাড়া বাকি দুই শিক্ষিকাকেও গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে পুলিশ জানায়।

বুধবার বিকেলে নিহতের বাবার দায়ের করা পল্টন থানার মামলার তদন্ত দেওয়া হয় ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) আব্দুল বাতেনকে।

পুলিশের এ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদে বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উত্তরার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি শিক্ষিকা হাসনা হেনাকে গ্রেপ্তারের পর ডিবি কার্যালয়ে রাখা হয়েছে।

অবশ্য এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে ভিকারুননিসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, শাখাপ্রধান জিনাত আখতার ও অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে বরখাস্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত, অরিত্রীর বিরুদ্ধে স্কুল কর্তৃপক্ষ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নকলের অভিযোগ এনেছিল। এজন্য অরিত্রীর মা-বাবাকে ডেকে নেন ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ। এই ঘটনার জেরে বাসায় এসে অরিত্রী আত্মহত্যা করে।

পুলিশ ও পরিবারের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর শান্তিনগরে সাত তলা ভবনের সপ্তম তলায় নিজেদের ফ্ল্যাটে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় অরিত্রীকে পাওয়া যায়। তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চিকিৎসকরা অরিত্রীকে মৃত ঘোষণা করেন। অরিত্রীর গ্রামের বাড়ি বরগুনা সদরে। তার বাবা দিলীপ কুমার সিঅ্যান্ডএফ ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রতিবাদ করে নিহতের সহপাঠীরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.