Ultimate magazine theme for WordPress.

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতি জাপার অনুরোধ

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে ভূয়া ও তথ্যহীন সংবাদ থেকে বিরত থেকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে জাতীয় পার্টি (জাপা)।

শনিবার দলটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি জাতীয় পার্টি এবং জাতীয় পার্টির উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের হেয় প্রতিপন্ন করতে কিছু সংখ্যক গণমাধ্যম উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে ভূয়া ও তথ্যহীন সংবাদ পরিবেশন করছে। এতে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীদের মাঝে এক ধরনের ভুল বোঝাবুঝি এবং সাধারন মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। তাই গণমাধ্যমের বন্ধুদের সংবাদ প্রকাশ/প্রচার ও সম্প্রচারের আগে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বেশ ক’দিন ধরে কয়েকটি গণমাধ্যমে জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি শওকত চৌধুরীর বরাত দিয়ে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরা হচ্ছে। যিনি জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নীলফামারী-৪ আসনে নির্বাচন করছেন। তার বরাত দিয়ে সংবাদ পরিবেশেনের কারণে সৈয়দপুর থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেছেন শওকত চৌধুরী। এছাড়া নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেও তিনি মিথ্যে সংবাদ পরিবেশনের প্রতিবাদ জানিয়েছেন। শওকত চৌধুরী পার্টিকে জানিয়েছেন একটি অসৎ উদ্দেশ্য থেকেই তার বরাত দিয়ে মিথ্যে সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে।

কাজী মোঃ মামুনুর রশিদ জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা। এবার ব্রাহ্মনবাড়িয়া-৫ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তার বরাত দিয়ে মিথ্যে সংবাদ পরিবেশনের প্রতিবাদে প্রতিবাদলিপি সংশ্লিষ্ট পত্রিকায় দিয়ে রিসিভ করিয়ে এনেছেন। তিনিও জানান দলের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টির উদ্দেশ্যেই মিথ্যে ও উদ্দেশ্যমূলক সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে।

জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু জানিয়েছেন, তার বরাত দিয়ে কয়েকটি গণমাধ্যমে মিথ্যে, বানোয়াট এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু জানান, গণমাধ্যমের কোন কর্মীর সঙ্গেই কথা হয়নি তার।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সফিকুল ইসলাম সেন্টু পদত্যাগ করেছেন, এমন গুজবও গণমাধ্যম কর্মীদের মাঝে ছড়িয়েছিলো এক কুচক্রি মহল। এ প্রসঙ্গে সফিকুল ইসলাম সেন্টু বলেন, আমি জাতীয় পার্টিতে ছিলাম, আছি এবং থাকবো। বলেন, যারা মিথ্যে অপবাদ দিয়ে পার্টির মহাসচিবসহ শীর্ষ নেতাদের হেয় প্রতিপন্ন করতে চায়, তারা জঘন্য কাজ করছে।

কয়েকটি পত্রিকা সংবাদের শিরোনাম করেছে জাতীয় পার্টি অফিসে তালা। কিন্তু সংবাদের ভেতরে উল্লেখ ছিলো না কে বা কারা তালা ঝুলিয়েছে। প্রকৃতপক্ষে জাতীয় পার্টি অফিসে কেউই তালা ঝুলিয়ে দেয়নি। আবার জাতীয় পার্টি অফিসে ভাংচুর বা পার্টি মহাসচিব অবরুদ্ধ- এ ধরনের সংবাদ একেবারেই মনগড়া। আবার ঘটনার সময়ে যারা বিভিন্ন এলাকায় মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন তাদের বরাত দিয়েও সংবাদ এসেছে কোন কোন গণমাধ্যমে। যা একেবারেই দুঃখজনক।

পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেছেন, গণমাধ্যম কর্মীরা যেন মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত তথ্যে বিভ্রান্ত না হন। তিনি বলেন, মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে কেউ কেউ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলেছেন, যার সঙ্গে সত্যের কোন মিল নেই।

তিনি বলেন, যারা জতীয় পার্টিকে বিতর্কিত করতে অপচেষ্টা করছে তারা সফল হবে না।

Leave A Reply

Your email address will not be published.