Ultimate magazine theme for WordPress.

তাবলিগ জামাতের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

0

গাজীপুর থেকে প্রতিনিধি/- গাজীপুরের টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা ময়দান এলাকায় শনিবার দুপুরে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে এক মুসল্লি নিহত এবং শতাধিক মুসল্লি আহত হয়েছে।

এক মুসল্লির নিহতের বিষয়টি টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন নিশ্চিত করেছেন। নিহত মুসল্লির নাম ইসমাইল মন্ডল। তিনি মুন্সীগঞ্জের মিলিয়াপাড়া গ্রামের খলিল মন্ডলের ছেলে। তিনি মাওলানা সা’দ গ্রুপের অনুসারী।

পুলিশ, ইজতেমা সূত্র এবং স্থানীয়রা জানায়, টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে মাওলানা জুবায়ের ও মাওলানা সাদ এই দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়েছে মুসল্লিরা। জোড় ইজতেমা উপলক্ষে মাওলানা জুবায়ের গ্রুপের তাববিগ জামাতের মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানে আগে থেকে অবস্থান নিয়েছিল।

শনিবার সকাল থেকে সাদ গ্রুপের অনুসারীরা ইজতেমা ময়দান এলাকায় আসতে শুরু করে এবং ভিতরে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মুসল্লিদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সাদ গ্রুপের মুসল্লিরা ইজতেমা মাঠের চারপাশ এবং সংলগ্ন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে পশ্চিম লেনে অবস্থান নেয়। এতে ওই লেনে যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। উভয় গ্রুপের মুসল্লিদের মধ্যে মাঝে-মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং দুপুরে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় শতাধিক মুসল্লি আহত হয়েছে। তাদের টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্যাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন জানান, দুপুরে মুসল্লিদের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয়পক্ষের বেশ কিছু মুসল্লি আহত হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের সংখ্য তিনি জানাতে পারেননি।

গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. সৈয়দ মো. মঞ্জুরুল হক জানান, দুপুর ২টা পর্যন্ত টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্যাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে ১০৬ জন মুসল্লিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ২১ জনকে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.