Ultimate magazine theme for WordPress.

পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যা মামলার প্রধান আসামি নিহত

0

সাভার থেকে প্রতিনিধি/- আশুলিয়ায় মেহেদী হাসান টিপু হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি বাবুল হোসেন মুন্সী পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

বুধবার রাতে বাবুল মুন্সীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। গ্রেপ্তারের পর তাকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে আাশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় একজন উপপরিদর্শকসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে তিন রাউন্ড গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত বাবলু হোসেন মুন্সী বরগুনা জেলার সোনাতলা থানার টেকনি গ্রামের বাবর আলী মুন্সীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র ও অপহরণসহ একাধিক মামলা ছিল বলে পুলিশ জানায়।

আশুলিয়ার থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মনিরুল হক ডাবলু জানান, গত ১২ নভেম্বর নিশ্চিন্তপুর এলাকা থেকে পলিথিনের প্যাকেটে মোড়ানো অবস্থায় মেহেদী হাসান টিপুর আট টুকরো মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ হত্যাকাণ্ডের হোতা ছিলেন বাবুল। তাকে গ্রেপ্তার করার পর অভিযানে গেলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা অন্য সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় অন্য অপহরণকারীদের ছোড়া গুলিতে বাবুল গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, গত ১২ নভেম্বর আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর থেকে মেহেদী হাসান টিপু নামের এক ব্যক্তির আট টুকরো লাশ উদ্ধার করেছিলো পুলিশ। তাকে অপহরণ করে হত্যা করা হয়েছিলো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.