Ultimate magazine theme for WordPress.

৬ আসনে সম্পূর্ণ ভোট ইভিএমে নেওয়ার সিদ্ধান্ত

0

নিজস্ব প্রতিবেদক /- আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ছয়টি আসনে সম্পূর্ণ ভোট ইভিএমে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশন সচিব (ইসি) হেলালুদ্দীন আহমদ শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ইভিএম ব্যবহার সংক্রান্ত কমিশনের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা জানান।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘৩০০ আসনের মধ্যে ছয়টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। তবে কোন কোন আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে তা জানা যাবে ২৮ নভেম্বর।’

ইসি সচিব বলেন, ‘দৈবচয়নের ভিত্তিতে আসনগুলো বাছাই করা হবে। আর আসনগুলো হবে সিটি করপোরেশন ও শহর এলাকায়।’

মোট ছয়টি আসনের কতগুলো কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যেহেতু আসন নির্ধারণ করা হয়নি, তাই গড়ে দেড়শটি করে কেন্দ্র ধরে নিলে মোট ৯০০ কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হতে পারে।’

বৈঠকে সিইসি, চার নির্বাচন কমিশনার ও ইসি সচিব উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর সংসদ নির্বাচনের ভোট হবে। ২৮ নভেম্বর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন  ৯ ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ হবে ১০ ডিসেম্বর।

 

ইভিএম কী? : গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় ভোট প্রয়োগে মেশিন বা ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি অণুসৃত হয় বলে সামগ্রিক প্রক্রিয়াটি ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম নামে পরিচিত। এর অন্য নাম ই-ভোটিং। এতে একটি মেশিনে প্রায় চার হাজারটি পর্যন্ত ভোট দেয়া যায়। সর্বোচ্চ ৬৪ জন প্রার্থীর তালিকা থাকে। বাটন চাপ দিয়ে অক্ষরজ্ঞানহীন ব্যক্তিও ভোট দিতে পারে। একটি ভোট দিতে আনুমানিক ১৪ সেকেন্ড সময় লাগে।

একজন ভোটারের কোনভাবেই একটির বেশি ভোট দেয়ার সুযোগ থাকে না। সাধারণ ব্যালট ভোটের মতো কেন্দ্রেও সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর পক্ষে পোলিং এজেন্টরা, নেতাকর্মীরাসহ পর্যবেক্ষকরাতো থাকবেই। মেশিনটিতে একটি পূর্ব-প্রোগ্রামিং করা মাইক্রোচিপ থাকে যা প্রতিটি ভোটের ফলাফল তাৎক্ষণিকভাবে হিসেব করে প্রদর্শন করে। এতে ব্যালট কাগজে সিল মারার পরিবর্তে ভোটার পছন্দের প্রতীকের পাশের সুইচ টিপে ভোট দিতে পারেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.