Ultimate magazine theme for WordPress.

ইসি-প্রশাসনের বৈঠকে ‘গোপন ছক’ আঁকা হয়েছে : বিএনপি

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- নির্বাচনের পরিবেশ সরকারের অনুকূলে রাখতে নির্বাচন কমিশন ও পুলিশ প্রশাসনের বৈঠকে গোপন ছক আঁকা হয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।


শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন,
প্রশাসন ও পুলিশে কর্মরত বিতর্কিত ও দলবাজ কর্মকর্তাদের প্রত্যাহার করতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনের বরাবরে আবেদন করলে সিইসি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সভায় বলেছেন, কোনো কর্মকর্তাকে বদলি করা হবে না। সিইসির এ ধরনের বক্তব্য দলবাজ কর্মকর্তাদের আরো বেপরোয়া করে তুলবে।

উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে নির্বাচন কমিশনরে বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার নির্দেশসমূহ এবং উপস্থিত কিছু পুলিশ কর্মকর্তার বক্তব্যে মনে হয়, উভয় পক্ষই সরকারের অনুকূলে একতরফা নির্বাচনেরই একটা গোপন ছক তৈরি করে রেখেছে, বলেন বিএনপির এই নেতা।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের বিরুদ্ধে গতকাল নির্বাচন কমিশন ও পুলিশ কর্মকর্তারা একজোট হয়ে বৈঠক করেছেন। বৈঠকের আলোচনায় মনে হয়, বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্টকে আসন্ন জাতীয় নির্বাচন থেকে কীভাবে দমন করে চাপিয়ে রাখা যায়, তারই মহাপরিকল্পনা হয়েছে সেখানে।

তাদের আলোচনায় এটি অত্যন্ত সুস্পষ্ট যে, দলীয় চেতনায় সাজানো পুলিশ কর্মকর্তাদের কোনো নড়চড় করবে না নির্বাচন কমিশন। অর্থাৎ সরকারের অনুকূলেই সমতল ভূমি নির্মাণ করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে ইসি, বলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সমান সুযোগ-সুবিধা, বিতর্কিত ও দলবাজ পুলিশ কর্মকর্তা ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রত্যাহার এবং নিরপেক্ষ কর্মকর্তাদের দিয়ে প্রশাসন সাজানোর দাবি করেন রুহুল কবির রিজভী।

আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু না হলেও বিভিন্ন জায়গায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তা শুরু করেছেন, দাবি করে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলেন তিনি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.