LastNews24
Online News Paper In Bangladesh

২২তম মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম

0

ষ্টাফ রিপোর্টার/- রোববার (১৩ অক্টোবর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এক আদেশে ২২তম মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে খন্দকার আনোয়ারুলকে । তিনি মোহাম্মদ শফিউল আলমের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন।  পূর্বে তিনি ছিলেন সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ১৯৮৩ সালের বিশেষ ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা।

চাকরির মেয়াদ শেষে এক বছরের চুক্তিতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দায়িত্ব পালন করছেন শফিউল আলম। তাকে চুক্তিতে তিন বছরের জন্য বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ১ নভেম্বর বা যোগদানের তারিখ থেকে এই নিয়োগ কার্যকর হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে আগামী ১৩ ডিসেম্বর শফিউল আলমের চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল। এর আগেই আগামী ২৯ অক্টোবর থেকে সেই চুক্তি বাতিল করে বিশ্বব্যাংকে তাকে এই নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এ জন্য শফিউল আলম আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে দায়িত্বে থাকছেন।

নতুন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ২০১১ সালের ১৩ নভেম্বর সেতু বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে যোগ দেন। তিনি ২০১৩ সালের ৩১ জানুয়ারি সচিব পদে পদোন্নতি পান। ২০১৭ সালের ১৩ জুলাই সিনিয়র সচিব হন।

আনোয়ারুল ইসলাম কেন্দ্রীয় ও মাঠ প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মাঠ প্রশাসনে উপজেলা ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পরিচালক, জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব এবং উপসচিব, ত্রাণ ও পুনর্বাসন অধিদফতরের পরিচালক, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিবের পদেও ছিলেন খন্দকার আনোয়ারুল।

আনোয়ারুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ বিভাগ থেকে বিএসএস (অনার্স) এবং এমএসএস ডিগ্রি অর্জন করেন। তার গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলে। তার স্ত্রী কামরুন নাহার মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব। তিনি দুই পুত্রসন্তানের জনক।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মন্ত্রিসভা ও বিভিন্ন মন্ত্রিসভা কমিটির সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মূল দায়িত্ব হচ্ছে মন্ত্রিসভা ও এর কমিটিগুলোকে সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহায়তা এবং গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও সমন্বয়।সরকারের সামগ্রিক কার্যক্রম পর্যালোচনা ও সমন্বয়ের অন্যতম ফোরাম সচিব সভা। মন্ত্রিপরিষদ সচিব এ সভার সভাপতি। তাছাড়া মন্ত্রিপরিষদ সচিব সিভিল প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন পদগুলোতে পদোন্নতির সুপারিশকারী সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ডের (এসএসবি) সভাপতি।

এছাড়া মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ মাঠ প্রশাসন তথা বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের কাজের তদারক করেন। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগের কাজের সমন্বয় সাধনও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অন্যতম দায়িত্ব।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy