LastNews24
Online News Paper In Bangladesh

লেবাননে তুরস্কের সৈন্য মোতায়েন থাকবে

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- জাতিসংঘের অন্তর্বর্তীকালীন বাহিনীর সহযোগী হিসেবে আরও এক বছর লেবাননে তুরস্কের সৈন্য মোতায়েন থাকবে। দেশটির সংসদে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেছিলেন ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট (একে) পার্টির এক সদস্য। জাতিসংঘের অন্তর্বর্তীকালীন বাহিনীর অংশ হিসেবে লেবাননে আরো এক বছরের জন্য সৈন্য মোতায়েন রাখার ঘোষণা দিয়েছে তুরস্ক। দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা আনাদোলু অ্যাজেন্সি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

সংসদের প্রধান বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি), ন্যাশনালিস্ট ম্যুভমেন্ট পার্টি (এমএইচপি) ও গুড (আইওয়াইআই) পার্টির বিরোধিতা সত্ত্বেও প্রস্তাবটি পাস হয়।

লেবাননে জাতিসংঘের অন্তর্বর্তীকালীন বাহিনীর সদস্য হিসেবে তুরস্কের সেনা মোতায়েন রয়েছে। মোতায়েনের সময় বৃদ্ধি করায় এখন জাতিসংঘের ইউএনআইএফআইএল মিশনে অংশ নেয়া এই তুর্কি সেনারা দেশটিতে আগামী ২০২০ সালের ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সেখানে থাকবে।

লেবাননে সৈন্য মোতায়েনের জন্য ২০০৬ সালে তুরস্কের পার্লামেন্টে প্রথম একটি প্রস্তাবনা পাস হয়। এর পর গত ১৩ বছরে দেশটির সংসদে কমপক্ষে ১২ বার সেনা মোতায়েনের এই সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়।

লেবাননে জাতিসংঘের ইউএনআইএফআইএল মিশনে বিশ্বের ৪০টি দেশের অন্তত ১০ হাজার ৬০০ সেনা মোতায়েন রয়েছে।লেবানন থেকে ইসরায়েলি সৈন্যরা ফিরে যাওয়ার পর ১৯৭৮ সালে প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের ইউএনআইএফআইএল মিশনের কার্যক্রম শুরু হয়। দেশটির নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা ফেরার লক্ষ্যে ও সরকারকে সহযোগিতা করতে জাতিসংঘ ওই বছর প্রথমবারের মতো শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েন করে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy