LastNews24
Online News Paper In Bangladesh

পাকিস্তানের ৮০ শতাংশ মানুষই দেশ নিয়ে উদ্বিগ্ন

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- পাকিস্তানের কমপক্ষে ৮০ শতাংশ মানুষই তাদের দেশ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তাদের ধারণা দেশ ভুল পথে যাচ্ছে। সম্প্রতি এক গবেষণা থেকে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

কনজিউমার কনফিডেন্স সার্ভে ইন পাকিস্তান নামের ওই জরিপে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের পাঁচজন নাগরিকের মধ্যে চারজনই মনে করেন যে, গত বছর থেকেই দেশ ভুল পথে যাচ্ছে।

বেশিরভাগ মানুষের কাছেই বেকারত্ব একটি অন্যতম সমস্যা। গত বছর থেকে চলতি বছর দেশটির বেকারত্ব আরও ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

ফান্সভিত্তিক আইপিএসওএস নামের একটি সংস্থার ওই জরিপে উঠে এসেছে যে, প্রতি পাঁচজনের মধ্যে চারজনই মনে করেন যে দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই খারাপ।

রোববার পাকিস্তানের নাগরিকদের ওপর করা এই জরিপের রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের শহর ও এর আশেপাশের প্রতি ১০০০ জনের ওপর সমীক্ষা চালানো হয়। ৫০ শতাংশ পুরুষ ও ৫০ শতাংশ নারীকে এজন্য বেছে নেওয়া হয় যাদের বয়স ১৮ বছরের ওপরে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে এই সমীক্ষা চালায় সংস্থাটি।

ওই সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রতি চারজন পাকিস্তানি নাগরিকের মধ্যে তিনজনই দেশের শাসন ব্যবস্থা ও সরকারের ওপর অসন্তুষ্ট। তারা মনে করেন সঠিক পথে যাচ্ছে না দেশ এবং এক্ষেত্রে পরিবর্তন দরকার।

প্রতি পাঁচজনের মধ্যে চারজন পাক নাগরিক মনে করেন আগামী ছয় মাসে পাকিস্তানের অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে।

প্রতি চারজনের মধ্যে তিনজন পাক নাগরিকের ধারণা দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা একেবারে তলানিতে ঠেকেছে।
প্রতি পাঁচজনের মধ্যে দুজন পাক নাগরিক মনে করে ব্যক্তিগত ভাবে অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে রয়েছে পাকিস্তান

পাকিস্তানে বর্তমানে সবচেয়ে দুশ্চিন্তার বিষয় হচ্ছে কর্মসংস্থানের অভাব। এর মধ্যে রয়েছে অত্যধিক মূল্যবৃদ্ধি ও দারিদ্র্য।
পাঞ্জাব প্রদেশ, খাইবার পাখতুনখোয়া, সিন্ধু প্রদেশে বিদ্যুতের অভাবও মাথাব্যথা বাড়াচ্ছে।

জীবনযাত্রার খরচ যে হারে বাড়ছে, সে হারে অর্থনৈতিক ভিত্তি নেই পাকিস্তানে। ২০ জন পাক নাগরিকের মধ্যে মাত্র একজন মনে করেন যে, স্থানীয় ভিত্তিতে অর্থনৈতিক দিক থেকে শক্তিশালী পাকিস্তান।

এছাড়া প্রতি দুজন নাগরিকের মধ্যে একজন মনে করেন গত বছর থেকে চলতি বছরে তাদের প্রত্যেকের কেউ না কেউ কাজ হারিয়েছেন। ২০১৮ সালের আগস্ট থেকে ২০২০ সালের আগস্ট মাসের মধ্যে এই প্রবণতা ৩১ শতাংশ বেড়েছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy