LastNews24
Online News Paper In Bangladesh

নির্বাচনে কোনও ধরনের জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/- আমি আমেরিকানদের জানাতে চাই যে, চলতি বছরের নির্বাচনে সত্যিই কোনও ধরনের জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ৩ নভেম্বর দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকেই ডাকযোগের ভোটে জালিয়াতি হতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়ে আসছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল নির্বাচন কমিশন দেশটিতে গত ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে কোনও ধরনের জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়ে দিয়েছেন। দেশটির ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টি নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছে বলে একাধিকবার অভিযোগ করেছে। তবে শনিবার নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তা এলেন উয়েনট্রব নির্বাচনে জালিয়াতির প্রমাণ মেলেনি বলে মন্তব্য করেছেন।

ভোটগ্রহণের দিন থেকে রিপাবলিকান শিবির নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট পার্টি চুরির চেষ্টা করছে বলে বারবার অভিযোগ তুলেছে। যদিও নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনও ধরনের প্রমাণ হাজির করতে পারেনি রিপাবলিকানরা।

স্থানীয় সময় শনিবার সকালে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে এলেন উয়েনট্রব বলেন, দেশজুড়ে কেন্দ্রীয়, স্থানীয় এবং ভোট কর্মকর্তারা সত্যিই কঠোর পরিশ্রম করেছেন। নির্বাচন যেভাবে সম্পন্ন হয়েছে; তাতে খুব সামান্যই অভিযোগ উঠেছে।

তিনি বলেন, বাস্তবসম্মত অভিযোগ খুব কম এসেছে। কোনও ধরনের ভোট জালিয়াতির প্রমাণ মেলেনি। অবৈধ ভোট গ্রহণের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। আসলে এটার জন্য শুধুমাত্র আমার কথা শুনলেই হবে না। কারণ দেশজুড়ে সাধারণ মানুষ, নিরপেক্ষ নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা নির্বাচনী প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছেন। নির্বাচন কীভাবে সম্পন্ন হয়েছে সারা দেশের মানুষ সেটি দেখেছেন।

উইনট্রব বলেন, আসলেই নির্বাচনে জালিয়াতির কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। জালিয়াতির প্রমাণ হিসেবেও অভিযোগের সঙ্গে কোনও কিছু উপস্থাপন করা হয়নি।

২০০০ সালের পর মার্কিন নির্বাচনের ফলের জন্য এবারের মতো কখনই অপেক্ষা করতে হয়নি। গত মঙ্গলবার দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হলেও এখন পর্যন্ত গণনা শেষ হয়নি। কারণ দেশটিতে এবার রেকর্ড ১০ কোটিরও বেশি মানুষ আগাম ভোট দিয়েছেন।

দেশটির মোট ২৪ কোটি ভোটারের মধ্যে ১৯ কোটি নির্বাচনে ভোট দেয়ার জন্য নিবন্ধন করেছিলেন। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে জনসমাগম এড়াতে এবার দেশটিতে আগাম ভোটের পরিমাণ বেশি ছিল।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী জো বাইডেন ২৬৪ এবং রিপাবলিকান দলীয় জো বাইডেন ২১৪ টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়েছেন। তবে নেভাদা, পেনসিলভানিয়া ও জর্জিয়ায় এগিয়ে থাকায় হোয়াইট হাউসের মসনদে বসতে চলেছেন জো বাইডেনই।

ভোটগ্রহণ হলেও এখনও হাজার হাজার ভোট গণনা বাকি রয়েছে। দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর ভাগ্য ঝুলে আছে আলাস্কা (৩টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট), নেভাদা (৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট), পেনসিলভানিয়া (২০টি), নর্থ ক্যারোলিনা (১৫টি) এবং জর্জিয়া (১৬টি) অঙ্গরাজ্যে। এই পাঁচ অঙ্গরাজ্যের মধ্যে নেভাদা, পেনসিলভানিয়া ও জর্জিয়ায় এগিয়ে আছেন জো বাইডেন। এছাড়া আলাস্কা এবং নর্থ ক্যারোলিনায় এগিয়ে আছে ডোনাল্ড ট্রাম্প।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy